No icon

কঠিন গ্রুপে বাংলাদেশ

যোদ্ধা ডেস্কঃ বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ আন্তর্জাতিক ফুটবল টুর্নামেন্টের কঠিন গ্রুপে জায়গা পেয়েছে স্বাগতিক বাংলাদেশ। টুর্নামেন্টের ‘এ’ গ্রুপে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ ২০১৮ সালে সর্বশেষ আসরের চ্যাম্পিয়ন ফিলিস্তিন ও শ্রীলঙ্কা। ‘বি’ গ্রুপে খেলবে বুরুন্ডি, মরিশাস ও সেশেলস। জাতির জনক শেখ মুজিবুর রহমানের নামে এই টুর্নামেন্টের গ্রুপ নির্ধারণের জন্য গতকাল দুপুরে রাজধানীর একটি পাঁচ তারকা হোটেলে জমকালো ড্র অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এ অনুষ্ঠানেই উন্মোচিত হয় টুর্নামেন্টের লোগো। ড্র ও লোগো উন্মোচন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল এমপি। এসময় বিশেষ অতিথি ছিলেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল এমপি।

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন বাফুফের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও টুর্নামেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান আবদুস সালাম মুর্শিদী এমপি, ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র আতিকুল ইসলাম, বঙ্গবন্ধু জন্মশতবর্ষ উদযাপন কমিটির সদস্য সচিব ড. কামাল আবু নাছের চৌধুরী, প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠান কে স্পোর্টসের সিইও ফাহাদ এম করিম, ফিফা কাউন্সিল মেম্বার মাহফুজা আক্তার কিরণ, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক হারুনুর রশিদ এবং বাফুফে সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগসহ অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ।

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীকে সামনে রেখে আয়োজন করা হচ্ছে এবারের বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ টুর্নামেন্ট। শুরুতে ছয়টি দলকে নিয়ে টুর্নামেন্ট আয়োজনের পরিকল্পনা থাকলেও শুক্রবার সন্ধ্যায় বাফুফে সুত্রে জানায় যায়, পাঁচ দেশকে নিয়ে মাঠে গড়াবে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপের ষষ্ঠ আসর। এরপরেই নাটকীয়ভাবে বেড়ে যায় আরেকটি দল। স্বস্তির নিঃশ্বাস ছাড়েন বাফুফে কর্তারা। অবশেষে তারা ৬ দলকে নিয়েই আয়োজন করতে পারছেন জাতির জনকের নামে টুর্নামেন্টটি।

এর আগে বাফুফে অনেক দেশকেই আমন্ত্রণ জানিয়েছিল বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপে খেলতে। কিন্তু আন্তর্জাতিক সূচির সঙ্গে খাপ খাইয়ে অধিকাংশ দেশই টুর্নামেন্টে খেলতে অপারগতা জানায়। তবে কেউ কেউ অনুর্ধ্ব-১৯ কিংবা অনুর্ধ্ব-২৩ দল পাঠাতে চেয়েছিল। কিন্তু বাফুফের সিদ্ধান্ত হচ্ছে, জাতীয় দল ছাড়া কেউ অংশ নিতে পারবে না বঙ্গবন্ধুর নামে টুর্নামেন্টে। অবশেষে শেষ দল হিসেবে শুক্রবার রাতে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপে যুক্ত হয় ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে ১৫১তম স্থানে থাকা বুরুন্ডি। আফ্রিকান এই দেশটি রাজি হয়েছে তাদের জাতীয় দলকে পাঠাতে। সেই অনুযায়ী কাল ছয়টি দলকে নিয়েই ড্র অনুষ্ঠিত হয়। ড্র’তে র‌্যাঙ্কিংয়ের ভিত্তিতে ৬ দলকে রাখা হয়েছিল ৩টি পটে। সেখান থেকেই লটারির মাধ্যমে নির্বাচন করা হয় দুই গ্রæপের প্রতিদ্ব›দ্বী দলকে। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে আগামী ১৫ জানুয়ারি শুরু হবে এই টুর্নামেন্টের খেলা। ২৫ জানুয়ারি ফাইনালের মধ্যদিয়ে শেষ হবে এবারের বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ।

২০১৮ সালে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ আন্তর্জাতিক ফুটবল টুর্নামেন্টের পঞ্চম আসরে তাজিকিস্তানকে টাইব্রেকারে ৪-৩ গোলে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল ফিলিস্তিন। ১৯৯৬-৯৭ সালে শুরু হওয়া বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপে বাংলাদেশের সেরা সাফল্য ২০১৫ সালে। ওই বছর টুর্নামেন্টের তৃতীয় আসরে মালয়েশিয়া অনূর্ধ্ব-২৩ দলের কাছে ৩-২ গোলে হেরে রানার্সআপ হয়েছিল লাল-সবুজরা। তবে ২০১৬ ও ২০১৮ সালে শেষ চারে হেরে বিদায় নিয়েছিল স্বাগতিক দল।

Comment