No icon

বোচাগঞ্জে জাতীয় পুরস্কার প্রাপ্ত মৎস্য চাষী ডাব্লুর আধুনিক পদ্ধতিতে মৎস্য চাষে ব্যাপক সফলতা অর্জন

যোদ্ধা ডেস্কঃ দিনাজপুরের বোচাগঞ্জ উপজেলার ৫নং ছাতইল ইউনিয়নের ছাতইল গ্রামের বাসিন্দা জাতীয় পুরস্কার প্রাপ্ত বিশিষ্ট মৎস্য উৎপাদন কারী মোঃ হুসেন সোরওয়ার্দী ডাব্লু আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে মৎস্য চাষের পাশাপাশি মৎস্য উৎপাদন করে ব্যাপক সফলতা অর্জন করেছেন। 
এই মৎস্য চাষীর সাথে আলাপ করে জানা গেছে, ১৯৯৫ সাল থেকে সে মৎস্য চাষের সাথে জড়িত। প্রথমে নিজের ২/৩টি পুকুরে নিজের সামান্য পূজি নিয়ে মৎস্য চাষ শুরু করলেও বর্তমানে সে এখন নিজের ৪টি পুকুর সহ সরকারি ১০টি পুকুরে আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে মৎস্য চাষ ও মৎস্য উৎপাদন করে সমগ্র দিনাজপুর জেলায় নিজেকে একজন সফল মৎস্য চাষী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। সরকার ঘোষিত আমিষ উৎপাদনে ব্যাপক সাফল্যে অর্জনে ২০০৪ সালে জাতীয় পুরস্কার পান। 
মৎস্য চাষী মোঃ হুসেন সোরওয়ার্দী ডাব্লু অ¬ারো জানান, বর্তমানে লক্ষ্মিপুর গ্রামের ৬ একরের সরকারী লীজকৃত আদর্শ আধেরা পুকুরটি খননের মাধ্যমে দেশীও প্রজাতির বিভিন্ন জাতের মাছ চাষে উপযোগী করে তুলেন। সেই সাথে মাছের বৃহৎ উৎপদনের স্বার্থে লক্ষাধিক টাকা মূল্যের আধুনিক এ্যাডটর (পানিতে অক্সিজেন তৈরীতে সক্ষোম) স্থাপন করেন। প্রতিদিন তিন বেলা উৎপাদিত মাছের জন্য উন্নত মানের খাদ্য দেওয়া হয়। পুকুরের চারিপাশে বিভিন্ন জাতের ঔষধী গাছ সহ ফলজ ও বনজ গাছ রোপন এবং পুকুরটি আলোকিতর জন্য সার্চলাইটের ব্যবস্থা করা হয়েছে যেন রাতের আধারে উক্ত পুকুরের মূল্যবান মাছ নষ্ট না হয়। মৎস্য চাষী ডাব্লুর স্বপ্ন লক্ষ্মীপুর গ্রামেই তার নিজস্ব পুকুরের সাথে একটি আধুনিক মানের মৎস্য হ্যাচারী ও মিনি পার্ক স্থাপন করার। এ লক্ষে তিনি কাজ করে যাচ্ছেন। মৎস্য চাষে তার এই অভাবনিয় সফলতা দেখে অনেকেই মৎস্য চাষে উদ্বুদ্ধ হচ্ছেন। 

 

Comment