No icon

সেতাবগঞ্জে সরকারি কলেজের অধ্যক্ষের দূর্নীতির বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

যোদ্ধা ডেস্কঃ সেতাবগঞ্জ সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ মনজুর আলম কর্তৃক অনার্সের ১০টি বিভাগের শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে অবৈধভাবে অতিরিক্ত ফি আদায়ের প্রতিবাদের গতকাল ১৬ মে বৃহস্পতিবার দুপুরে সেতাবগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে ঘন্টা ব্যাপী মানববন্ধন ও বিক্ষোভ প্রদর্শন করে কলেজের অধ্যক্ষের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি দাবী করেন। 
মানববন্ধনে শিক্ষার্থীনা জানান, সেতাবগঞ্জ সরকারি কলেজের অনার্স প্রথম বর্ষের বাংলা, রাষ্ট্র বিজ্ঞান, ইসলামের ইতিহাস, হিসাব বিজ্ঞান, ব্যবস্থাপনা, গণিত, পদার্থ বিজ্ঞান, উদ্ভিদ বিদ্যা, প্রাণী বিদ্যা ও সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে প্রতিমাসে বেতন বাবদ ৫শত পঞ্চাশ টাকা করে আদায় করা হচ্ছে এছাড়া অন্যান্য ভর্তি ফি বাবদ চার হাজার পঞ্চাশ টাকা, ফরম পূরন ফি বাবদ দুই হাজার ৫২০ টাকা, ইনকোর্স ফি বাবদ ৫শত টাকা আদায় করা হচ্ছে। এর আগে আইএফআইসি ব্যাংক সেতাবগঞ্জ শাখায় সব টাকা জমা নেওয়া হত কিন্তুু ২০১১ সালে যোগদান করার পর থেকে অধ্যক্ষ মনজুর আলম ব্যাংক জমা বন্ধ করে দিয়ে নাম মাত্র রশিদে হাতে নগদ টাকা জমা নিয়ে আত্মসাত করেছেন। এছাড়াও কলেজের বিভিন্ন শাখায় অনুরুপভাবে অবৈধভাবে অর্থ আদায়ের অভিযোগ রয়েছে। যার হিসাব কলেজের ক্যাশ বহিতে সঠিকভাবে লিপিবদ্ধ করা হয় না। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন জয়দেব চক্রবর্তী, আনন্দ চন্দ্র রায়, অন্তর চন্দ্র রায়, আখতারুল ইসলাম, মনিরুজ্জামান, জয়া রানী সরকার, মিনু আক্তার প্রমুখ। বক্তারা অধ্যক্ষ মনজুর আলমের এহেন দূর্নীতির সুষ্ঠ তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবী জানান। উল্লেখ্য যে, গত ১৫ মে এ বিষয়ে বোচাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও সভাপতি সেতাবগঞ্জ সরকারি কলেজ বরাবরে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীরা লিখিত অভিযোগ করেন। 

Comment